25 C
Kolkata

Brazil : সাম্বা ঝড়ে বিধ্বস্ত দক্ষিণ কোরিয়া, নেইমার দলে ফিরতেই ছন্দে ব্রাজিল

দোহা: এলেন, দেখলেন, জয় করলেন। নেইমার জুনিয়র। সার্বিয়ার বিরুদ্ধে গ্রুপের শেষ ম্যাচে চোট পেয়ে মাঠ ছেড়েছিলেন। তারপর আর খেলতে পারেননি। নকআউটে দলে ফিরলেন ব্রাজিলিয়ান তারকা। তিনি ফিরতেই ছন্দে ব্রাজিল। দক্ষিণ কোরিয়াকে ৪-১ গোলে হারিয়ে কাতার বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে গেল সেলেকাওরা। এদিন প্রথমার্ধের শেষেই ৪ গোলে এগিয়েছিল ব্রাজিল। প্রথমার্ধেই ৪ গোল হয়ে যাওয়ায় দ্বিতীয়ার্ধে আর সেভাবে আক্রমণের চেষ্টা করেনি ব্রাজিল। বরং বিপক্ষ দলকে কিছুটা খেলার সুযোগ দেন নেইমাররা। এরই সুযোগ নেন সন হিউং-মিনরা।

এদিন ম্যাচে ৭ মিনিটের মাথায় প্রথম গোল করে ব্রাজিলকে এগিয়ে দেন ভিনিসিয়াস জুনিয়র। এরপর ১২ মিনিটের মাথায় পেনাল্টি থেকে দলের দ্বিতীয় গোল করেন নেইমার। এটাই এবারের বিশ্বকাপে নেইমারের প্রথম গোল। ২৯ মিনিটে ব্রাজিলের হয়ে তৃতীয় গোল করেন রিচার্লিসন। এরপর ৩৬ মিনিটের মাথায় ব্রাজিলের হয়ে চতুর্থ গোল করেন লুকাস পাকুয়েতা। প্রথমার্ধে ব্যবধান বাড়ানোর আরও সুযোগ পেয়েছিল ব্রাজিল, কিন্তু আর গোল হয়নি। তবে এদিন প্রথমার্ধ জুড়ে সুন্দর ফুটবল উপহার দেয়ে ব্রাজিল।

আরও পড়ুন:  Reletion Tips: প্রতিদিন স্ত্রীর সঙ্গে খিটির-মিটির লেগে আছে? স্ত্রীর রাগ ভাঙ্গানোর ৯টি টিপস আপনার জন্য

দ্বিতীয়ার্ধে আর সেভাবে আক্রমণের চেষ্টা করেনি ব্রাজিল। বরং বিপক্ষ দলকে কিছুটা খেলার সুযোগ দেন নেইমাররা। এরই সুযোগ নেন সন হিউং-মিনরা। ৪৮ মিনিটের মাথায় ব্রাজিল রক্ষণকে চাপে ফেলে দেন দক্ষিণ কোরিয়ার অধিনায়ক। তবে তাঁর শট বাইরে চলে যায়। ৫৪ মিনিটে রাফিনহার শট দুর্দান্তভাবে বাঁচিয়ে দেন দক্ষিণ কোরিয়ার গোলকিপার। ৭২ মিনিটের মাথায় ভিনিসিয়াস ও ড্যানিলোকে তুলে নেন ব্রাজিলের কোচ তিতে। জয় নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় চোট এড়াতেই তিনি এই সিদ্ধান্ত নেন। এরপরেই ব্যবধান কমায় দক্ষিণ কোরিয়া। ৭৬ মিনিটের মাথায় বাঁ পায়ের অসাধারণ শটে গোল করেন পাইক সিউং হো। এরপর ৮১ মিনিটে নেইমারকে তুলে নেন তিতে। শেষের দিকে ব্যবধান বাড়ানোর আরো কয়েকটি সুযোগ পেয়েছিলেন রাফিনহা, রিচার্লিসনরা। তবে বল চালে জড়াতে পারেননি কেউই।

আরও পড়ুন:  kabir suman: বয়স হয়ে গেলেও বিছানায় কাম সজাগ, সিক্রেট ফাঁস কবীর সুমনের

Featured article

%d bloggers like this: