34 C
Kolkata

” ৪ চ্যালেঞ্জ সামলাতে হবে ,সামনে কঠিন লড়াই – ক্ষুদ্র রাজনীতি নয় ” মুখ্যমন্ত্রী

রাহুল গুপ্ত :: ” আমরা একসঙ্গে ৪টি চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি। করোনা, লকডাউন, পরিযায়ী শ্রমিক এবং ঘূর্ণিঝড়। “‘‌সব কিছু স্বাভাবিক করার ‌সাধ্যমতো চেষ্টা করছি। এই পরিস্থিতিতে ক্ষুদ্র রাজনীতি করবেন না।’‌ আবেদন মু্খ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির। ঘূর্ণিঝড় আমফানের জেরে বাংলা এখন ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, জেলায় মোট প্রায় ১০ লক্ষ বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত। ৪১ হাজারের বেশি বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙেছে। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় নদীবাঁধ ভেঙেছে ৫৬ কিলোমিটার। রাজ্যে ৬ কোটি, জেলায় ৭৩ লক্ষ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত। বিদ্যুৎ ফিরিয়ে দেওয়া এখন বড় দায়িত্ব। মমতা ব্যানার্জির নির্দেশ, দ্রুত বিদ্যুৎ পরিষেবা ফিরিয়ে দিতে হবে। ধ্বংসস্তূপ সরাতে আরও বেশি লোক লাগিয়ে কাজ করাতে হবে। ১০০ দিনের কাজে স্থানীয়দের নিয়োগ করতে হবে। জেলায় জাতীয় বিপর্যয়ের থেকেও বড় বিপর্যয়। এই বিপুল ক্ষতির মধ্যে দাঁড়িয়ে কাজ করতে হচ্ছে। বর্ষা–জনিত রোগের বিষয়েও রাজ্যবাসীকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন তিনি। আয়লাও দেখেছি, কিন্তু এমন বিপর্যয় কখনও দেখিনি। সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‌এই পরিস্থিতিতে ক্ষুদ্র রাজনীতি করবেন না। মাত্র দু’দিনের মধ্যে সব স্বাভাবিক করা সম্ভব? অন্যান্য রাজ্যে বিপর্যয়ের পর কত সময় লেগেছিল? আরও অনেক কষ্টের মধ্যে রয়েছেন, তাঁরা কীভাবে সহ্য করছেন? পুলিশ লকডাউন সামলাবে, নাকি ঝড় সামলাবে? এই ঘূর্ণিঝড়ে ১ লক্ষ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।’‌ এদিন সাংবাদিক বৈঠকে বলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুন:  Bardhaman: বিয়ের সানাই এবার পঞ্চায়েতের

Featured article