28 C
Kolkata

Abhishek Banerjee: ‘এখনও বিশ্বাস করি না’ অভিষেকের আশ্বাসেও ভরসা নেই জামালদের

শ্রাবণী পাল: নিয়োগ দুর্নীতিতে প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীর গ্রেপ্তারির পরই শাসকদলকে বিঁধতে শুরু করে বিরোধীরা। ধর্মতলার গান্ধীমূর্তি এবং শহিদ মিনারের মাতঙ্গিনী হাজরা মূর্তির পাদদেশে বসা চাকরিপ্রার্থীরাও ক্ষেপে ওঠেন। মন্ত্রীর এহেন দুর্নীতি বরদাস্ত করবেন না বলে বিক্ষোভও শুরু হয়। বৃহস্পতিবারই হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং দলের অন্যান্য নেতৃত্ব ঠিক করে বৈঠকে বসার। শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু, অভিষেক এবং দলের অন্যান্য নেতৃত্ব বৈঠক করেন ক্যামাক স্ট্রিটের কার্যালয়ে। কুণাল ঘোষের সঙ্গে দপ্তরের বাইরে হাজির হন শ’য়ে শ’য়ে চাকরিপ্রার্থী। বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, ২০১৬ সালের প্রথম এসএলএসটি তালিকাভুক্ত সকলের চাকরি হবে। এ ব্যাপারে আগামী ৮ অগস্ট শিক্ষামন্ত্রী এবং শিক্ষা দফতরের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন এসএসসি আন্দোলনকারীদের প্রতিনিধিরা। আইনি জটিলতা কাটিয়ে দ্রুত চাকরি দেওয়া হবে বলে আশ্বস্ত করেছেন অভিষেক। আন্দোলনকারীরা খুশি তবে এখনই প্রতিবাদ থেকে উঠছেন না কেউ। এসএলএসটি কর্মশিক্ষা-শারীরশিক্ষা চাকরিপ্রার্থী শেখ জামাল কী-খবরকে জানান, (উচ্ছ্বসিত গলায়) ‘একদিনে জট কাটা সম্ভব নয়। যতদিন আমরা চাকরি পাচ্ছি না, ভরসা করি না। এই সরকারের উপর ভরসা ক্ষীণ হয়ে এসেছে অনেকের। এর আগেও প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে বহুবার। প্রেক ক্লাবের সামনে দীর্ঘ ২৯ দিন আন্দোলন করেছিলাম। তখনও চাকরি হবে আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল। যতক্ষণ স্কুলে যাব না, বিশ্বাস করব না। এখনই আন্দোলন উঠছে না।’ আক্ষেপ প্রকাশ করে তিনি আরও জানান, ‘কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী আমাদের নিয়ে কলকাতার গেস্ট হাউজে বৈঠক করেছিলেন। কিন্তু অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় শুধু নবম-দশমের প্রার্থীদের নিয়েই বসলেন কেন জানি না। তবে আমাদের লিখিত দাবি-দাওয়া জমা নিয়েছেন।’

আরও পড়ুন:  DA: 'ডিএ কর্মীদের প্রাপ্য' হাইকোর্টকে চ্যালেঞ্জ জানাতে সুপ্রিম পদক্ষেপ রাজ্যের

Featured article

%d bloggers like this: