24 C
Kolkata

মুর্শিদাবাদ ফরাক্কার নিশিন্দ্রা কাটান ভরাট নিয়ে বিক্ষোভ

নিজস্ব সংবাদদাতা : গত ৩০মে ঝাড়খন্ড থেকে পাহাড়ি জল নামায় জলের স্রোতে ভেঙে গিয়েছিলো মুর্শিদাবাদের ফরাক্কার নিশিন্দ্রা কাটান। বিচ্ছিন্ন হয়ে পরে ফরাক্কা ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক থেকে ঝাড়খণ্ডের ৮০ নম্বর জাতীয় সড়কের যোগাযোগের ব্যবস্থা। চরম সমস্যার মধ্যে পড়তে হয় স্থানীয় বাসিন্দা থেকে ট্রাক চালকদের।

তারপর প্রায় ১ মাসের মাথায় রাবিবার সন্ধ্যা থেকে শুরু হয় মুর্শিদাবাদের ফরাক্কার নিশিন্দ্রা কাটানের ভরাটের কাজ । ফারাক্কার ট্রাক অ্যাসোসিয়েশনের তরফ থেকে এর প্রতিবাদে মঙ্গলবার সকালে ফরাক্কা নিশিন্দ্রা কাটানের সামনে বিক্ষোভ দেখায় । ফরাক্কা ভূমিরক্ষার কমিটির তরফ থেকে অভিযোগ সময়ের অনেক আগে ঝাড়খন্ড থেকে পাহাড়ির জল নামায় জলের স্রোতে কেটে গিয়েছিলো ফরাক্কার নিশিন্দ্রার কাটান।

এখন যদি এই ফরাক্কার নিশিন্দা কাটান ভরাট করা হয় তাহলে বর্ষার সময় আবার ঝাড়খন্ড থেকে পাহাড়ি জল নামলে ফরাক্কার ফিটার ক্যালানের পশ্চিমপারে নিশিন্দ্রা, তিলডাঙ্গা, ঘোরাইপাড়া, ধর্মডাঙ্গা, জিতুপুর সহ অন্যান্য এলাকার বর্ষার জল জমায় ফসল নষ্ট হয়ে যাবে। ফলে ক্ষতির মুখে পড়তে হতে পারে কৃষকদের। ফরাক্কা ভূমিরক্ষার কমিটির দাবি এই নিশিন্দ্রা কাটানের ওপরে ব্রিজ নির্মাণ করা হোক বা একটা বাইপাস রাস্তা করা হোক।

আরও পড়ুন:  Anubrata Mondal : লটারির মালিকের খোঁজে ফের বোলপুরে সিবিআই

অন্যদিকে ফরাক্কা বেওয়া ২ তৃণমূল কংগ্রেসের অঞ্চল সভাপতি বরুন ঘোষ জানান প্রতিবছর বর্ষার সময় ঝারখান্ড থেকে পাহাড়ির জল নামায় জলের স্রোতে কেটে যায় ফরাক্কার নিশিন্দ্রার কাটান। ফলে চরম সমস্যার মধ্যে পড়তে হয় স্থানীয় এলাকা বাসিন্দাদের,।আর এই ফরাক্কার নিশিন্দ্রা কাটান জলের স্রোতের কাটার ফলে স্থানীয় এলাকা বাসিন্দাদের প্রায় ৬ থেকে ৭ কিলোমিটার ঘুরে গন্তব্যে যেতে হয়, না হলে নৌকা করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যেতে হয়।

তাই স্থানীয় বাসিন্দাদের সুবিধার জন্য এই নিশিন্দ্রা কাটানটি অস্থায়ী ভাবে ভরাট করা হচ্ছে। কারণ আবার বর্ষা শুরু হলে ঝাড়খণ্ড থেকে পাহাড়ি জল নামলে আবার এই ফরাক্কার নিশিন্দ্রা কাটান জলের স্রোতে কেটে যাবে। আর এই ফরাক্কার নিশিন্দ্রা কাটানের ওপর দিয়ে ব্রিজ নির্মাণ করার জন্য ফরাক্কা তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক মনিরুল ইসলাম কথা দিয়েছেন এবং উনি চেষ্টাও করছেন খুব তাড়াতাড়ি ফরাক্কা নিশিন্দ্রা কাটানের উপর দিয়ে ব্রিজ নির্মাণের কাজে শুরু করবেন।

আরও পড়ুন:  Diamond Harbour Bomb: নাইলনের ব্যাগ থেকে উদ্ধার গুচ্ছ গুচ্ছ বোমা

Featured article

%d bloggers like this: