22 C
Kolkata

Agnimitra Paul:- নিগৃহীতা পরিবারের সাথে দেখা করতে আসলেন বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পল

নিজস্ব প্রতিবেদন:- চলতি মাসের ৩ তারিখ অর্থাৎ বৃহস্পতিবার এক পাশবিক ঘটনার সাক্ষী ছিল দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার গঙ্গাসাগরে চক ফুল ডুবি এলাকা। এক চতুর্থ শ্রেণীর নাবালিকা শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল প্রতিবেশী এক যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে ছিল এলাকায়। ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগের পর তদন্ত শুরু করেছিল পুলিশ।

চতুর্থ শ্রেণীর নাবালিকা সেই শিশু কন্যাকে যৌন নির্যাতনের পর গা ঢাকা দিয়েছে অভিযুক্ত যুবক শেখ শাকিল। ঘটনার তিন দিন পেরিয়ে গেলেও অধরা অভিযুক্ত। ফেরার রয়েছে সে। যুবকের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

রবিবার নিগৃহীতা ওই নাবালিকা শিশু কন্যার পরিবারের সাথে দেখা করতে আসেন বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পল। নিগৃহীতার পরিবারের সাথে দেখা করে তাদের পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন বিজেপি নেত্রী। পাশাপাশি ঘটনায় এখনো পর্যন্ত অভিযুক্তকে কেন আটক করা হয়নি সেই প্রশ্ন তোলেন তিনি। অবিলম্বে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে কঠোর ধারায় মামলা রুজু করে গ্রেপ্তার না করলে বৃহত্তর আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি দেন বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পল।

নিগৃহীতা শিশুকন্যার পরিবারের সাথে দেখা করে বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল জানান অভিযুক্তের বিরুদ্ধে যে ধারা দেওয়ার কথা তা দেওয়া হচ্ছে না। গরিব মানুষদের উপর এভাবে অত্যাচার চালানো হচ্ছে আমরা এর বিচার চাই। আমরা যখন এই পরিবারের সাথে দেখা করার জন্য গঙ্গা ঘাটে অপেক্ষা করছিলাম তখন কোনো ট্রলার আমাদেরকে নিয়ে আসতে চাইনি, তাদেরকে বলা হলে তারা জানাই তাদেরকে ট্রলারে করে নিয়ে আসলে আগামীকাল থেকে ঘাটে আর ওই ট্রলার চালাতে পারবে না তারা। সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে তিনি জানান মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার আগে তিনি বলেছিলেন বিরোধীদের জায়গা দেওয়ার কথা তবে এখন বিরোধীশূন্য রাজনীতি করতে চাইছেন তিনি। তবে বলব আমাদের এই ভাবে আটকানো যাবেনা। পরবর্তীতে আমরা থানায় যাব। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ধারা দিয়ে গ্রেপ্তার না করলে আগামী দুই-একদিনের মধ্যে থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ নামব আমরা।

আরও পড়ুন:  Puruliya : নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায় স্কুলবাস

যদিও ঘটনা প্রসঙ্গে নিগৃহীতা নাবালিকা শিশুকন্যার আত্মীয় ইয়াসমিনা বিবি জানান সেদিন রাতে আমরা অন্য বাড়িতে ছিলাম। আমাদের বাড়ির মেয়ে বাড়ি ফিরে এসেছিল টিউশন সেরে। আমরা বাড়িতে না থাকায় বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে কান্না করছিল। ঠিক সেইসময় অভিযুক্ত ওই যুবক তাকে আমাদের কাছে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে নিয়ে গিয়ে এই ঘটনা ঘটায়। আমরা প্রশাসনের কাছে আবেদন জানিয়েছি এবং প্রশাসনের প্রতি আমাদের আস্থা রয়েছে।

পরিবারের এক সদস্য সিরাজ আলম জানান সেদিন রাতে যে ঘটনা ঘটেছে এরপর প্রশাসনের দ্বারস্থ হলে প্রশাসন সর্বোত্ত ভাবে পরিবারের পাশে থেকে সহযোগিতা করছে। পার্শ্ববর্তী যুবক শেখ শাকিল এই ঘটনা ঘটিয়েছে। এই ঘটনার সাথে কোন রাজনৈতিক যোগ নেই। প্রশাসনের প্রতি আমাদের আস্থা রয়েছে।

আরও পড়ুন:  Monalisa:প্রকাশ্যে মাঝরাতে একি হলো ঝুমা বৌদির সঙ্গে?

স্থানীয় বাসিন্দা চম্পা জানা জানান আমি অভিযুক্ত যুবককে দেখি নি। পানের বরজের ওখানে সাইকেল দেখে আমার সন্দেহ হয়। এরপর পানের বরজের মালিককে ডাকাডাকি করলে সে জানায় তাদের পরিবারের কেউ সেই বড়জে যায়নি। এরপর বাড়ি থেকে এসে দেখতে পান ঘটনাস্থলে সাইকেলটি নেই। মেয়েটির কান্নার আওয়াজ শুনতে পান তিনি। দেখেন মেয়েটি ব্যথায় ছটফট করে কান্না করছে। এরপর এই খবর দেওয়া হয় পরিবারের। তবে ঘটনার পর থেকে ভীতসন্ত্রস্ত এলাকার মানুষ। এলাকার অন্যান্য বাড়ির মেয়েরাও বাড়ি থেকে বেরোতে সাহস পাচ্ছে না। তাই আবেদন জানিয়েছেন প্রশাসন অতি দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করুক।

Featured article

%d bloggers like this: