25 C
Kolkata

Chairman of Monitoring Committee declared: কার নজরদারিতে ‘উন্নয়নমূলক প্রকল্প’

নিজস্ব প্রতিবেদন: এসএসসি দুর্নীতি নিয়ে যথেষ্ট অস্বস্তিতে রাজ্য সরকার। এরকম অবস্থায় নতুন করে আর এক বিপত্তি ভেসে উঠছে সরকারের সামনে। সরকার কল্যাণমূলক ও উন্নয়ন প্রকল্পের জন্য পরিকল্পনা ও পর্যবেক্ষণ কমিটি গঠন করেছে। সেই কমিটির চেয়ারম্যান এক স্থানীয় ব্যবসায়ী যার নাম বেশ কিছু বিতর্কিত কার্যের সাথে যুক্ত ছিল।

৮মে গঠিত হয় ‘প্রোগ্রাম মনিটরিং কমিটি ফর দ্যা পার্পস অব প্ল্যানিং এন্ড মনিটরিং অব ওয়েলফেয়ার এন্ড ডেভেলপমেন্ট স্কীমস অফ দ্যা স্টেট গভর্নমেন্ট’। কৌস্তভ রায়কে এই কমিটির চেয়ারম্যান মনোনীত করা হয়। এই বিজ্ঞপ্তির একটা কপি আইএএনএস – এর কাছেও উপলব্ধ।

কৌস্তভ রায় কলকাতার এক ব্যবসায়ী যার ব্যবসায়িক সাম্রাজ্য কম্পিউটার হার্ডওয়ার, সফ্টওয়ার এবং মিডিয়া ইন্ডাস্ট্রিতে বিস্তৃত ছিল। ২০১৮তে আর পি ইনফোসিস্টেম্স-এর ব্যাংক জালিয়াতিতে তাঁর নাম জড়ায়। পাঞ্জাব ন্যাশানাল ব্যাংক, কানাড়া ব্যাংক সহ বিভিন্ন ব্যাংক থেকে ৫১৫ কোটি টাকার জালিয়াতির জন্য সিবিআই এর হাত গ্রেপ্তার হন। ২০২১ এ কৌস্তভ রায়ের মালিকানাধীন এক টিভি চ্যানেলকে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক সতর্কীকরণ চিঠি পাঠায়। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের “নিরাপত্তা ক্লিয়ারেন্স” অস্বীকার করার কথা উল্লেখ করে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক থেকে লাইসেন্স বাতিল করার কথা বলে।

আরও পড়ুন:  Howrah Fire: হাওড়ার বাগনানে বিধ্বংসী আগুন, ভস্মীভূত ২০ টি দোকান

কৌস্তভ রায়কে আইএএনএস এর তরফ থেকে কথা বলতে চাইলে , তিনি বলেন যে এই নিয়োগের ব্যাপারে তিনি অবগত নন। ওপর দিকে সমস্ত রাজনৈতিক দল এই নিয়োগ নিয়ে রাজ্য সরকারের বিরোধিতা করছেন। বিজেপির অগ্নিমিত্রা পাল টুইট করে জিজ্ঞেস করেছেন কৌস্তভ রায়ের পরিচয়। তিনি রাজ্য সরকারকে বিঁধেছেন এই বলে যে একজন দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যক্তি যদি রাজ্যের উন্নয়নমূলক প্রকল্পের ভার সামলান তবে সেই রাজ্যের উন্নয়নের ভব্যিষ্যৎ কি?

আরও পড়ুন:  Jalpaiguri Road Accident: লরি সংঘর্ষের ফলে চলন্ত গাড়িতে আগুন

উল্লেখ্য ২০২১এর নির্বাচনে তৃণমূল উন্নয়নকে হাতিয়ার করে ‘খেলা হবে’ স্লোগান তুলে সবুজ ঝড় তোলে পশ্চিম বাংলায়। তবে এই নিয়োগ কি কোনও ভাবে তৃণমূলের ভাবমূর্তিতে কালিমা লাগবে? গোটা রাজনৈতিক মহল সেই দিকেই তাকিয়ে।

Featured article

%d bloggers like this: