34 C
Kolkata

কলকাতা সহ ৫ জেলায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস

নিজস্ব সংবাদদাতা :: কিছুদিন আগেই রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় আছড়ে পড়েছে ঘূর্ণিঝড় ‘আমফান’। ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বহু শহর থেকে গ্রাম। সেই পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই ফের বজ্র-বিদ্যুত্‍সহ ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস দিলো আবহাওয়া দপ্তর। জানা গিয়েছে চলতি সপ্তাহ জুড়ে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।কলকাতা, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, নদিয়া ও দুই চব্বিশ পরগণায় রয়েছে ভারী বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা। এছাড়া অন্যান্য জেলাগুলিতেও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হতে পারে। আগামী বুধবারের পর থেকে বৃষ্টির পরিমাণ বাড়বে বলেই জানা গিয়েছে। এছাড়া গোটা সপ্তাহ ধরে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে।অন্যদিকে আবহাওয়া দপ্তরের তরফে জানানো হয়েছে, আগামী দুদিন উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। কোচবিহার, জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ার এই তিন জেলায় অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে। দক্ষিণী ও পূবালী হাওয়ার মিলিত প্রভাবে প্রচুর পরিমাণে জলীয় বাষ্প ঢুকেছে এ রাজ্যে। যার ফলেই এই ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে , দক্ষিণ পশ্চিমী বাতাস একটু বেশি গতিতে বইছে। তেমনই হাওয়া অফিস এও জানাচ্ছে যে উত্তর পূর্ব ভারতের উপর টোপোগ্রাফির প্রভাব পড়ছে। তাই এই হাওয়া দিচ্ছে। কলকাতায় সকালের হাওয়ার গতিবেগ ১৪.৮ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা। কিন্তু এই বাতাসের পুরোটাই দক্ষিণ – পশ্চিমী বাতাস এবং এর গতি বেশ তীব্র।মঙ্গলবার সকালে কলকাতার সর্বনিম্ন ২৮.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের দুই ডিগ্রি বেশি। আবার সোমবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩২.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। আর এভাবেই ভারসাম্য বজায় থাকছে পারদের। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৮৭ সর্বনিম্ন ৭২ শতাংশ। ছিটেফোঁটা বৃষ্টিও হয়েছে শহরে।

আরও পড়ুন:  Sovan-Baisakhi Nabanna TMC Joining Controversy: নবান্নে শোভন বৈশাখী! নতুন উত্তেজনা রাজনৈতিক মহলে
আরও পড়ুন:  School Re- Opened: স্কুলমুখী পড়ুয়ারা

Related posts:

Featured article