28 C
Kolkata

সাঁকরাইল এ পথদুর্ঘটনা রুখতে স্থানীয় মানুষজনের উদ্যোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা : রাস্তায় যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করতে আর দুর্ঘটনা কমানোর উদ্দ্যেশে প্রশাসনের পক্ষ থেকে রাস্তায় বাম্পার দেওয়া হয়। বিশেষ করে জনবহুল জায়গায় ব্যস্ত রাস্তায় এই বাম্পার বেশি দেখতে পাওয়া যায়। রাস্তার ওই বাম্পারের ফলে দ্রুত গতির যান চলাচল যেমন নিয়ন্ত্রিত হয়, তেমন কমে দুর্ঘটনার পরিমাণ। কিন্তু রাস্তার এই বাম্পার যদি ঘাতক হয়? তাহলে! হ্যাঁ, এরকম ঘটনার সাক্ষী রইল সাঁকরাইলের মানুষ।ঝাড়গ্রাম জেলার সাঁকরাইলের কুলটিকরী কলেজ রোডের রাস্তার উপর থাকা বাম্পার গুলোর সাদা দাগের মার্কিং দীর্ঘদিন ধরে বিলুপ্ত হয়ে যাওয়ার কারণে এলাকায় দুর্ঘটনার পরিমাণ বাড়ছে বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর।

সাধারণ মানুষের অভিযোগ, কুলটিকরী কলেজের দুদিকে থাকা দুটি বাম্পের দীর্ঘদিন ধরে দাগ মুছে গেছে। এনিয়ে বার বার প্রশাসনকে জানিয়েও কোন সুরাহা হয়নি‌। একটি গুরুত্বপূর্ণ জনবহুল রাস্তার ওপর বাম্পারে কোনও সাদা রং এর দাগ না থাকায় এলাকায় প্রতিদিন দুর্ঘটনা ঘটছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। তাঁর পাশাপাশি রবিবার সকালে দ্রুতগতির গাড়ি চলাচল করার ফলে আবারও একটি দুর্ঘটনা ঘটে। ফলে কুলটিকরীর মানুষ আর বাম্পারের জন্য প্রশাসনের মুখাপেক্ষী না থেকে নিজেরাই রাস্তার উপর বাম্পারে সাদা রঙের দাগ দিয়ে গাড়ির গতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা শুরু করলেন।

আরও পড়ুন:  Durga Puja: কালের ধুলোয় মলিন 'মহিষাসুরমর্দিনী' স্রষ্টা বাণীকুমার
আরও পড়ুন:  Durga Puja: কালের ধুলোয় মলিন 'মহিষাসুরমর্দিনী' স্রষ্টা বাণীকুমার

এদিন স্থানীয়রা দোকান থেকে রঙ এনে রাস্তার উপর সাদা দাগ কেটে দেন তারা। যাতে গাড়ির চালক আগে থেকে বুঝতে পারেন এলাকাটি জনবহুল। এবং বাম্পার আছে বলে। ফলে বুঝতে পেরে গাড়ি নিয়ন্ত্রণে আনতে চেষ্টা করবেন চালক। এতে দুর্ঘটনাও কমবে। প্রশাসন কবে এই বাম্পারগুলিতে পাকাপাকি ভাবে রং দাগ দেওয়ার কাজ শুরু করে সে দিকেই তাকিয়ে সাঁকরাইলের মানুষ? যার প্রাথমিক কাজটি স্থানীয় মানুষজন সেরে ফেলল সোমবার দুপুরে ।

Featured article

%d bloggers like this: