22 C
Kolkata

Mamata Banerjee Dakshineshwar: রামকৃষ্ণের বাণীতে বিজেপিকে ধরাশায়ী করলেন মমতা

নিজস্ব প্রতিবেদন: রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের আগে দিল্লিতে অ-বিজেপি দলগুলির সঙ্গে বৈঠক সেরেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শহরে ফিরেই দক্ষিণেশ্বরে গেলেন তিনি। আগেই মন্দির চত্বরে ডালা আর্কেড থেকে শুরু করে মন্দির পর্যন্ত স্কাইওয়াক তৈরি, সবই করেছে তাঁর সরকার। এবার ‘লাইট অ্যান্ড সাউন্ড’ প্রকল্প চালু করলেন মুখ্যমন্ত্রী। অডিও-ভিজুয়াল মাধ্যমে প্রাচীন মন্দিরের ইতিহাস বর্ণনা হবে। ইতিহাস ও ছবি সম্বলিত একটি বইও প্রকাশিত হয়েছে এইদিন। মমতা জানান, ‘এবার ২৫মিনিটেই মন্দিরের ইতিহাস জানা যাবে। বই পড়ার প্রয়োজন আর নেই।’

রানি রাসমনি-রামকৃষ্ণ-বিবেকানন্দের নাম উঠে আসে মুখ্যমন্ত্রীর মুখে। ‘টাকা মাটি, মাটি টাকা’- রামকৃষ্ণের বাণী দিয়েই বিজেপিকে এইদিন একহাত নিলেন মমতা। তাঁকে বলতে শোনা যায়, ‘প্রয়োজনের অতিরিক্ত কিছু চাওয়া ঠিক নয়। কিন্তু এখন সকলের সব কিছু বেশি বেশি করে চাই। কী দরকার? সব মিটে গেলে, অতিরিক্ত চাওয়ার তো কিছু নেই। অর্থবল, পেশিবল মানবিকতার জন্ম দিতে পারে না।’ নূপুর শর্মার বিতর্কিত মন্তব্য উল্লেখ না করেই এইদিন জবাব দিয়েছেন মমতা। তাঁর স্পষ্ট বক্তব্য, ‘কিছু লোভী নেতাই দাঙ্গা করে। যাদের মাথা নোংরা ডাস্টবিনে ভর্তি। জঞ্জাল তৈরি করে আগুন লাগায়। গাড়ি পোড়ায়। আমি নাকি নমাজ পড়ি। আমি ইফতারে যাই। আমি জৈন মানমন্দিরে যাই। আপত্তির কী আছে এতে? তারাপীঠে কী বিরাট ভোগ মন্দির! সব করে দিলাম। নবদ্বীপ, কোচবিহারে হেরিটেড সিটি তৈরি হয়েছে। বাংলা এমন জায়গা যেখানে দু’টো হেরিটেজ সিটি করে দিয়েছি।’ দক্ষিণেশ্বরে হেলিপ্যাড তৈরি করে দেওয়ার কথাও এইদিন জানিয়েছেন মমতা।

আরও পড়ুন:  Diamond Harbour Bomb: নাইলনের ব্যাগ থেকে উদ্ধার গুচ্ছ গুচ্ছ বোমা

Featured article

%d bloggers like this: