28 C
Kolkata

আদালতের রায়ের পর নেওয়া হবে জনতার রায়

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিধানসভার বিধায়ক যদি কোন কারণে না থাকেন, তাহলে সংবিধান অনুযায়ী ৬ মাসের মধ্যেই নির্বাচন করে নিতে হবে নতুন বিধায়ক। সেই অনুযায়ী ২০ অগাস্টের মধ্যে হওয়া উচিত নির্বাচন। তবে মামলা চলছে কোর্টে, প্রাক্তন বিধায়ক কারচুপি করে জিতেছেন ভোটে। সেই মামলার শুনানি ১০ অগাস্ট তাহলে কি হবে অমীমাংসিত মামলার মধ্যে নির্বাচন ঘোষণা?

২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচন জেতেন মানিকতলার দীর্ঘদিনের বিধায়ক স্বর্গীয় সাধন পান্ডে মহাশয়। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপির কল্যাণ চৌবে অভিযোগ করেন যে সাধন বাবু অসাধু উপায়, রিগিং করে জিতেছেন নির্বাচন। শুরু হয় মামলা যা এখনো নিষ্পত্তিহীন।

অপরদিকে গত বছর জুলাই মাসের মাঝামাঝি থেকে সাধনবাবুর শরীর খারাপ হওয়ায় ভর্তি হন হাসপাতালে। আইসিইউ তে থাকতে হয় ওঁকে। শেষ দিন পর্যন্ত তিনি আর নিজের বিধানসভায় সুস্থ হয় ফিরে আসতে পারেননি তিনি। ফেব্রুয়ারি মাসের ২০ তারিখে উনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন খাতায়-কলমে সেদিন থেকে মানিকতলা বিধানসভা বিধায়কহীন।

আরও পড়ুন:  ফেসবুকে পোস্ট করে দলত্যাগ, ২ সপ্তাহের মধ্যেই ফের প্রত্যাবর্তন, তীব্র কটাক্ষ BJP-র
আরও পড়ুন:  Howrah: নবরূপে হাওড়া ব্রিজ

সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হওয়ার কথা ২০ অগাস্টের মধ্যে। তবে কল্যান চৌবের করা মামলার শুনানি চলছে হাইকোর্টে শেষ হয়নি। নিষ্পত্তি হয়নি অভিযোগের তবে কি করে হবে নির্বাচন? তাই নির্বাচন কমিশন ঘোষণা করেছে, আগে হবে মামলার নিষ্পত্তি তারপরে উপ নির্বাচন।

Featured article

%d bloggers like this: