33 C
Kolkata

নাইট কারফিউতে মোটরসাইকেল চালানোয় বাধা দেওয়ায় পুলিশকর্মীকে ছুরির কোপ

নিজস্ব সংবাদদাতা: নাইট কারফিউর মধ্যে মোটর সাইকেল নিয়ে বের হওয়ায় বাধা দেন কর্তব্যরত পুলিশ কর্মী । এর জবাবে ওই পুলিশকর্মীকে মোটরসাইকেল চালকের সঙ্গে থাকা ছুরির আঘাতে গুরুতরভাবে আহত হতে হয়। বর্তমানে ওই আহত পুলিশ কর্মী আলিপুরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন । ঘটনাটি ঘটেছে খোদ কলকাতায় শিয়ালদা স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় শনিবার সাতসকালে। পুলিশ ওই মোটরসাইকেল চালককে গ্রেপ্তার করেছে। ধৃত মোটরসাইকেল চালকের নাম মোঃ জাভেদ। তার বাড়ি নারকেলডাঙ্গা এলাকায়। আহত পুলিশকর্মীর নাম আতাউর রহমান। তিনি মুচিপাড়া থানায় কনস্টেবল পদে কর্মরত। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার ভোররাতে শিয়ালদা স্টেশন চত্বর এলাকায় ডিউটি করছিলেন মুচিপাড়া থানার কনস্টেবল আতাউর রহমান। ভোর পাঁচটা নাগাদ এক যুবককে মোটরসাইকেল নিয়ে নাইট কারফিউ চলাকালীন যেতে দেখে তিনি বাধা দেন। শুরু হয় দুজনের মধ্যে বচসা। প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ান অনুযায়ী, ওই মোটরসাইকেল চালক বাধা পেয়ে তার সঙ্গে থাকা ধারালো ছুরি নিয়ে কনষ্টবল কে আক্রমণ করতে উদ্যত হয়। ওই কনস্টেবল পরিস্থিতি বেগতিক দেখে ছুটে প্রাণ বাঁচাতে গেলে শেষ রক্ষা হয় না। তাকে ধরে ধারালো ছুরির কোপ দেয় মদ্যপ মোটরসাইকেল যুবক। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে মুচিপাড়া থানার পুলিশ। রক্তাক্ত অবস্থায় ওই পুলিশ কনস্টেবলকে উদ্ধার করে আলিপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে বিশাল পুলিশবাহিনী নারকেলডাঙ্গা এলাকায় গিয়ে ওই মোটরসাইকেল যুবককে গ্রেপ্তার করে। তার মোটরসাইকেলটি আটক করা হয়েছে। কলকাতা শহরে নাইট কারফিউতে কর্তব্যরত পুলিশ কর্মীর এই ধরনের ঘটনার সম্মুখীন হওয়ায় প্রশ্ন দেখা দিয়েছে একশ্রেণীর নিয়ম ভঙ্গ কারি যুবকের আচরণ নিয়ে। কলকাতা পুলিশের উচ্চপদস্থ আধিকারিক দের দাবি, আগামী দিন নাইট কারফিউ আরো কঠোরভাবে বলবৎ হবে শহরের বুকে। যে এই নির্দেশ অমান্য করবে, তার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করবে কলকাতা পুলিশ।

আরও পড়ুন:  বন্ধ হল বর্ষ প্রাচীন ঐতিহ্য
আরও পড়ুন:  ক্লাসে বকেছিলেন, বদলা নিতে শিক্ষককে গুলি করল ছাত্র

Related posts:

Featured article

%d bloggers like this: