24 C
Kolkata

Subendu Adhikari: হাইকোর্টের অনুমতি ছাড়াই, বিরোধী দলনেতার দপ্তরে তল্লাশি

নিজস্ব প্রতিবেদন: এবার কলকাতা হাইকোর্ট সবিস্তার রিপোর্ট চাইল পূর্ব মেদিনীপুরের পুলিশ সুপার অমরনাথ কে-র কাছে থেকে। তার সাথেই আদালত জানায় হাই কোর্টের অনুমতি ছাড়া আগামিদিনে শুভেন্দুর বিরুদ্ধে এই ধরনের কোনও পদক্ষেপ করা যাবে না। পাশাপাশি, ওই অভিযান নিয়ে প্রশ্নও তুলেছে উচ্চ আদালত।বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার নির্দেশ, আগামী ১৪ জুন পূর্ব মেদিনীপুরের পুলিশ সুপারকে ওই দিনের হলফনামায় দিয়ে সবিস্তারে রিপোর্ট জমা দিতে হবে। এর পাশাপাশি বিচারপতি বলেন, ‘‘পুলিশ কি আইন জানে না? না কি আইন জেনেও এক জন বিরোধী দলনেতার বাড়িতে তল্লাশি চালাল? এটা দুর্ভাগ্যজনক!’’

তাদের অভিযোগ, দিনকয়েক আগে তমলুক থানা থেকে বাহিনী যায় নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর দপ্তরে। বিরোধী দলনেতার অভিযোগ, সার্চ ওয়ারেন্ট ছাড়াই পুলিশ সেখানে তল্লাশি চালায়। এছাড়া বিরোধী দলনেতার ক্ষেত্রে যে যে নিয়ম মানা উচিত ছিল, পুলিশ তা মানেনি। এ নিয়েই আদালতে মামলা দায়ের করেন তিনি। তবে এনিয়ে পূর্ব মেদিনীপুরের পুলিশ সুপারের বক্তব্য, শুভেন্দুর নির্বাচনী এজেন্ট মেঘনাদ পালের স্ত্রী সমবায় ব্যাঙ্কে চাকরি করতে ভুয়ো নথি দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ। তা নিয়ে তমলুক থানায় মামলা দায়ের হয়। তদন্তের স্বার্থে মেঘনাদ এবং তাঁর স্ত্রীর সন্ধানে শুভেন্দুর দফতরে পুলিশ গিয়েছিল বলে তাঁর দাবি।

আরও পড়ুন:  Iran vs Wales : আজ মুখোমুখি ইরান-ওয়েলস

Featured article

%d bloggers like this: