24 C
Kolkata

Tea Cup: নিশীথের দোকানে গিয়ে চায়ের সঙ্গে কাপটাও খেয়ে আসুন!

নিজস্ব প্রতিবেদন: চায়ের সঙ্গে বাঙ্গালির আবেগ আজকের নয়। চিনামাটির কাপ হোক বা মাটির ভাঁড়, চায়ের বাহারি স্বাদ একমাত্র বাঙালিই বোঝে। এবার আর চা খেয়ে ভাঁড় ফেলতে হবে না। অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে পশ্চিম মেদিনীপুরের এমএ পাশ চা ওয়ালা। নাম নিশীথ দাশ। লক ডাউনে আর্থিক টানাপড়েনের মধ্যে পড়েছিলেন। তারপরই শুরু ব্যবসা, সঙ্গে অভিনব উদ্ভাবন। আবিষ্কার করলেন বিস্কুটের কাপে চা। চুমুকের পর চুমুক দিয়ে আস্ত কাপটাই কামড়ে খেতে পারবেন আপনি। অবাক লাগছে তাই না? হ্যাঁ, এও সম্ভব। শুধু তাই নয়, এই কাপে প্রায় চল্লিশ মিনিট পর্যন্ত চা গরম থাকে। নিশীথের মতে, ‘আর্থিক সমস্যার পর ভেবেছিলাম স্বল্প বিনিয়োগে কী করা যায়। অনেক ভাবনা চিন্তার পর প্রতিযোগিতায় টিকে থাকার জন্য এই উদ্যোগ। আইস্ক্রিমের কোনেরই এটা একটা মোটা ধরন। রকমারি স্বাদের চাও পাওয়া যায় নিশীথের দোকানে। ছেলের এই সাফল্য দেখে আবেগপ্রবণ মা শিখা দাশও। ছেলের সঙ্গে দোকানে প্রায়ই থাকেন তিনি।

নিশীথ দাশের সঙ্গে মা শিখা দাশ।

এই উদ্যোগে একসঙ্গে জুড়েছে কলকাতা, চেন্নাই, পুনে। বিস্কুটের কাপ আসে দক্ষিণ-পশ্চিমের দুই শহর থেকে। খদ্দেররা খুশি চায়ের বিস্কুট কাপ পেয়ে। এই কাপ প্রথম তৈরি করে হায়দরাবাদের একটি সংস্থা। তারা জানিয়েছিল, প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি হয়েছে কাপটি। এর নাম ইট কাপ। সংস্থার নির্বাহী পরিচালক অশোক কুমার জানিয়েছেন, ‘দূষণ কমাতেই এই ভাবনা। অন্যরকম চায়ের কাপ মানুষেরও ভালো লাগবে।’ বর্তমানে গুজরাত, পশ্চিমবঙ্গ সহ একাধিক রাজ্যে এই কাপে চা পরিবেশন করা হয়।

আরও পড়ুন:  Weather Update: ক্রমশ নিম্নমুখী হচ্ছে তাপমাত্রা

Featured article

%d bloggers like this: