20 C
Kolkata

আবার ভয়াবহ পরিস্থিতি উত্তরাখণ্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদন : বেশ কিছুদিন ধরে চলছিলো তুষারপাত। চামোলি জেলার কাছের হিমবাহতে ফাঁটল, এর কারণেই হঠাৎ তুষার ধস। জারি করা হয়েছে হাই অ্যালার্ট। ধসের কারণে ধৌলিগঙ্গা নদীর বাঁধে ধরেছে ভাঙন। বিপুল ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে। উদ্ধারকার্যে ইতিমধ্যেই নেমেছে ITBP।


ইতোমধ্যেই নিখোঁজ ৭৫ জনের মতো বাসিন্দা,জলের তোরে ভেসে গেছেন বলেই সন্দেহ। ঋষিগঙ্গা নদীর বাঁধও ভেঙেছে। হরিদ্বার পর্যন্ত সতর্কতা জারি করা হয়েছে। উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত জানান, অলোকানন্দা নদীর পার্শ্ববতী এলাকার বাসিন্দাদের উদ্ধার করা হয়েছে। ভাগীরথীনদীর প্রবাহ বন্ধ করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে তিনি যাবেন বলেও জানিয়েছেন।


রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর মুখপাত্র প্রবীণ আলোক বলেনb রবিবার সকাল ১০:৩০ তপবনের কাছে হিমালয় ফাটল ধরে হড়পা বান আসে। ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জলবিদ্যুৎ প্রকল্প। স্থানীয় SDRF দলকে খবর দিলে মোর তিনটি দল পৌঁছায়, প্রত্যেকটি দলে ৩০জন করে আছেন। মুখ্যমন্ত্রী রাওয়াত বলেন, কোনো পুরোনো ভিডিও ছড়িয়ে আতঙ্ক ছড়াবেন না। প্রকৃতির কাছে আমাদের হাত পা বাঁধা। পরিস্থিতি মোকাবিলা করা হচ্ছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন:  বৃহস্পতিবার বর্ধমান সফরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়


এরআগেও ২০১৩তে ভয়াবহ তুষার ধস ও বানের কবলে পড়েছিলো উত্তরাখণ্ডের কেদারনাথ মন্দির সংলগ্ন অঞ্চল। তখন মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন বিজয় বহুগুনা।

Featured article

%d bloggers like this: