33 C
Kolkata

স্বামীর পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় খুন গৃহবধূ, বাড়ি ভাঙচুর ক্ষিপ্ত জনতার

নিজস্ব সংবাদদাতা: স্বামী দীর্ঘদিন ধরে পরকীয়া করছে। স্বামীর এই পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে খুন করল স্বামী। এই ঘটনায় এলাকায় ছড়িয়েছে চরম উত্তেজনা। ঘটনার কথা চাউর হতেই ক্ষিপ্ত জনতা অভিযুক্ত স্বামীর বাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাট করে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার ব্যাপক উত্তেজনা ছড়াল মিনাখাঁ থানার বাবুর হাট বাজারে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বাবুরহাট বাজার সংলগ্ন একটি নার্সিংহোমের মালিক তথা হাতুড়ে ডাক্তার সামসের সরদার (৪৫) বছর কুড়ি আগে দক্ষিণ ২৪ পরগনার জীবনতলা থানার গাঁথী এলাকায় আলি আজগার মোল্লার মেয়ে মমতাজ বিবির(৩৮) সঙ্গে বিয়ে হয়। কুড়ি বছরের সাংসারিক জীবনে তাদের দুটি ছেলে রয়েছে। তাদের অভিযোগ গত পাঁচ বছর ধরে নার্সিংহোমে কর্মরত বিভিন্ন মহিলার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করতেন ওই হাতুড়ে ডাক্তার সামসের সরদার। তাতে বারবার করে বাধা দিত তার স্ত্রী মমতাজ বিবি। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে মাঝেমধ্যেই তাদের মধ্যে গন্ডগোল বেঁধে থাকত। এর আগে বেশ কয়েকবার মমতাজ বিবিকে মারধর করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুন:  Howrah Municipality Area: প্যারাসিটামল নিলেই নথিভুক্ত করতে হবে নাম, ঠিকানা ও ফোন নম্বর
আরও পড়ুন:  Durga Puja2022: ত্রিশূলের বদলে মা দুর্গার হাতে তৃণমূলের দলীয় পতাকা!

দীর্ঘদিন ধরে এই ঘটনা ঘটার পর বুধবার রাতে চরম আকার ধারণ করে নেয়। অভিযোগ বুধবার রাতে ওই হাতুড়ে ডাক্তার তার স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে খুন করে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলিয়ে দেয়। ভোর বেলায় এই ঘটনার কথা জানাজানি হতেই এলাকার লোকেরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওই হাতুড়ে ডাক্তারের নার্সিংহোম ও বাড়ি ব্যাপক পরিমাণে ভাঙচুর চালায়। বাড়ির ভেতর থেকে ফ্রিজ, আলমারি, এসি মেশিন সহ একাধিক জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায় বলে জানা গেছে। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে মিনাখাঁ থানার বিশাল পুলিশবাহিনী। অভিযুক্ত পলাতক ওই হাতুড়ে ডাক্তারের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে মিনাখাঁ থানার পুলিশ। পাশাপাশি ওই মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বসিরহাট জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুন:  North 24 Pargana: ফের সিভিক ভলেন্টিয়ারকে মারধর, গ্রেপ্তার ২
আরও পড়ুন:  Malda: স্কুলের সামনে অপহরণের অভিযোগে গ্রেপ্তার যুবক

Related posts:

Featured article

%d bloggers like this: