28 C
Kolkata

TMC: সরকারি চাকরির পর এবার দলীয় পদ নিয়েও দুর্নীতি

নিজস্ব প্রতিবেদন: সামনে আসছে একের পর এক দুর্নীতির খবর। সম্প্রতি স্কুলে নিয়োগ দুর্নীতি ঘিরে তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি। জেল হেফাজতে রয়েছেন রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং তাঁর ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। অর্পিতার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে নগদ ৫০ কোটি টাকা। কেজি কেজি সোনা। এবার সামনে এল দলীয় পদ পাইয়ে দেওয়ার নামে দুর্নীতির অভিযোগ। টাকা নিয়ে দলীয় পদ পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল মুর্শিদাবাদের ভগবানগোলার তৃণমূল বিধায়ক ইদ্রিশ আলির বিরুদ্ধে। কিন্তু, টাকা নিয়ে পদ দেননি ইদ্রিশ। তাই তাঁর বাড়িতে তাণ্ডব চালালেন দলের কর্মীরাই। যদিও, সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তৃণমূল বিধায়ক।

জানা গিয়েছে, এদিন তৃণমূল বিধায়কের উপস্থিতিতেই তাঁর বাড়িতে দলীয় কর্মীদেরই তাণ্ডব চলে। নির্বিচারে চলে ভাঙচুর। ওলট-পালট করে দেওয়া হয় ঘরের আসবাব পত্র। বাড়ির ভিতরে তখন রয়েছেন তৃণমূল বিধায়ক। ঠিক তখনই বাড়ির জানলায় পড়তে থাকল একের পর এক বাঁশ-লাঠির আঘাত। বাড়ির বাইরে ছত্রভঙ্গ হয়ে পড়লো টেবিল চেয়ার। দলীয় পদ পাইয়ে দেওয়ার নাম করে, টাকা নেওয়ার অভিযোগে এভাবেই তাণ্ডব চলল মুর্শিদাবাদের ভগবানগোলার তৃণমূল বিধায়ক ইদ্রিশ আলির বাড়িতে।

আরও পড়ুন:  Kolkata Tala Bridge: অবশেষে উদ্বোধনের পথে টালা ব্রিজ
আরও পড়ুন:  Madan Mitra Biography: 'ও লাভলি'র জীবন কাহিনী

তৃণমূল কর্মীদের একাংশ অভিযোগ করেন, দলে পদ দেওয়ার লোভ দেখিয়ে সবজির ব্যাগে করে ১২ লক্ষ টাকা নেন ইদ্রিশ আলি। যদিও, সরাসরি অভিযোগ অস্বীকার করেছেন বিধায়ক। পাল্টা আইনি ব্যবস্থার নেওয়ারও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে। বাড়ি-গাড়ি ভাঙচুর এবং দলীয় কর্মীদের বিক্ষোভের পরই পুলিশের দ্বারস্থ হন ইদ্রিশ আলি। গতকাল রাতেই বিধায়কের আপ্ত সহায়ক ভগবানগোলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন বলে সূত্রের খবর। অভিযোগ দায়ের হয়েছে কুঠিরামপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের অঞ্চল সভাপতি মোস্তাফা শেখ-সহ ৪০-৫০ জন দলীয় কর্মীর বিরুদ্ধেই। অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে তৃণমূল বিধায়ককে হেনস্তা এমনকি খুনের চেষ্টাও করে দুষ্কৃতিরা।

Featured article

%d bloggers like this: