25 C
Kolkata

Cattle Smuggling: ইডির দপ্তরে হাজিরা দেওয়ার পরই গ্রেপ্তার ‘কেষ্ট’ ঘনিষ্ঠ টুলু মণ্ডল

নিজস্ব প্রতিবেদন: একের পর এক দুর্নীতি ইস্যুতে তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি। গরু পাচার মামলায় ইতিমধ্যে গ্রেপ্তার হয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল। বর্তমানে তিনি রয়েছেন আসানসোল জেল হেফাজতে। দিল্লির ইডি দপ্তরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়ে চলেছে তৃণমূল নেতার মেয়ে সুকন্যা মণ্ডল, অনুব্রত ঘনিষ্ঠ রাজীব ভট্টাচার্য এবং তাঁর হিসাবরক্ষককে। এর মধ্যেই গ্রেপ্তার হলেন ‘কেষ্ট’ ঘনিষ্ঠ ব্যবসায়ী টুলু মণ্ডল

গরু পাচারের মামলায় দিল্লিতে একাধিকবার জেরা করা হয় তাঁকে। ইডি-র র‌্যাডারে আগে থেকেই ছিলেন টুলু মণ্ডল। তার মধ্যেই রবিবার তাঁকে গ্রেফতার করে রাজ্য পুলিশ। একটি খুনের ঘটনায় তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। জানা যাচ্ছে, চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসের ৩ তারিখ খুনের ঘটনা ঘটে। মহম্মদবাজার এলাকায় এক যুবককে মারধরের অভিযোগ ওঠে। পরবর্তীতে ওই যুবকের মৃত্যু হয়। তার প্রেক্ষিতে আইপিসি-র ৩০২ ধারায় মামলা রুজু হয়। টুলু মণ্ডলের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমেও তাঁকে রবিবার সকালে গ্রেপ্তার করা হয় তাঁকে। আজই সিউড়ি আদালতে পেশ করা হয় টুলু মণ্ডলকে।

আরও পড়ুন:  কাঁথির নজরুল মেলা উদ্বোধনে গিয়ে ডুয়েটে মাতালেন কুণাল-সায়নী

এদিকে তাঁর গ্রেপ্তারির পর থেকেই একাধিক প্রশ্ন উঠে আসছে। অনুব্রত মণ্ডলের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ ব্যবসায়ী টুলু। অনুব্রতর বাড়িতে তাঁকে প্রায়ই দেখা যেত। এমনকি অনুব্রতর একাধিক সভাতেও দেখা গিয়েছে তাঁকে। পাশাপাশি, গরু পাচারের মামলায় টুলু মণ্ডলের বাড়িতে তল্লাশি অভিযান চালিয়েছিলেন ইডি আধিকারিকরা। সেখান থেকে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথিও উদ্ধার হয়।

এমনকি, গত শুক্রবার ইডি-র তরফে তাঁকে হাজিরা দেওয়ার নোটিস পাঠানো হয়। দিল্লিতে তাঁকে ডেকে পাঠানো হয়। শুক্রবার তিনি হাজিরাও দেন। এরই মধ্যে রাজ্য পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হলেন অনুব্রত ঘনিষ্ঠ টুলু মণ্ডল। তাহলে কি কাউকে বাঁচানোর জন্যই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হল? প্রশ্ন বিরোধীদের। কারণ টুলু মণ্ডল এখন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাদের র‌্যাডারে।

Featured article

%d bloggers like this: