35 C
Kolkata

Governor-Education Minister Meeting: উচ্চশিক্ষা নিয়ে রাজ্যের পাশে রাজ্যপাল, ব্রাত্যের সঙ্গে বৈঠকে দিলেন বার্তা

নিজস্ব প্রতিবেদন: হঠাৎ বৈঠক। শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুকে রাজভবনে ডেকে পাঠান রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। আর সেখানেই দীর্ঘ পঁয়তাল্লিশ মিনিট চলে আলাপআলোচনা। শিক্ষার নানা দিক নিয়েই মূলত এই বৈঠকে আলোচনা হয়। বৈঠক শুরুর আগেই ট্যুইট করা হয় রাজ্যপালের ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে। জানানো হয়, ”উচ্চশিক্ষা সম্পর্কিত বিষয় নিয়ে আলোচনার জন্য মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীকে রাজভবনে ডাকা হয়েছে। নিরবিচ্ছিন্নভাবে যাতে শিক্ষা ব্যবস্থাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়, সেই বিষয়ে আলোচনা হবে।” ব্রাত্য বসুকে সাদরে নিজের কক্ষে এনে বসার জন্যে বলেছেন রাজ্যপাল। বৈঠকের একটি ছবিও পোস্ট করা হয়। সেখানে রাজ্যপাল-শিক্ষামন্ত্রী টেবিলের দু’প্রান্তে বসে। দু’জনেরই মুখে হাসি রয়েছে। অনুমান, বৈঠকে ফলপ্রসূ আলোচনাই হয়েছে। জানা গেছে, উচ্চশিক্ষায় আগামী দিনে সহযোগিতার কথা জানিয়েছেন রাজ্যপাল। এরই সঙ্গে উপাচার্য নিয়োগ নিয়েও আলোচনা চলে। উচ্চশিক্ষার গতি নিয়েও কথা বলেছেন দু’জন।  বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক নিয়োগের জন্য রাজ্যপালের মনোনীত প্রতিনিধি নিয়ে আলোচনা হয়।

আরও পড়ুন:  Paresh Adhikari : প্রতিমন্ত্রী পরেশ কে শেষ সুযোগ হাইকোর্টের
আরও পড়ুন:  Amit Shah: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ই-মেলে অভিযোগ বিজেপি কর্মীর

আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনার পরও সরব হয়েছিলেন রাজ্যপাল। রাজ্যের তরফে আইন সংশোধনের পরপরই বিভিন্ন সময়ে শিক্ষা দফতরের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন রাজ্যপাল। যদিও উচ্চশিক্ষা দফতর ও একাধিকবার রাজ্যপাল ফাইল ফেরত পাঠাচ্ছেন তিনি। এই অভিযোগও উঠেছিল। এর আগেও শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন ধনকড়। কিন্তু উচ্চশিক্ষা নিয়ে তবুও একাধিক অভিযোগ তুলেছেন তিনি। এই বৈঠকের প্রভাব ইতিবাচন হবে বলেই মনে করা হচ্ছে। ধনকড়ের অভিযোগে ‘শিক্ষা ব্যবস্থার উদ্বেগজনক পরিস্থিতি’ শুধরে যেতে পারে বলেও মতপ্রকাশ করেছে ওয়াকিবহাল মহল।

Featured article