29 C
Kolkata

WB vaccination: ১৫-১৮ বয়সীদের টিকাকরণে পিছিয়ে বাংলা, আক্রান্তের মধ্যে শীর্ষ তালিকায়

নিজস্ব সংবাদদাতা: করোনা টিকাকরণে ফের আঙুল উঠল বাংলার দিকে। কেন্দ্রের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দাদরা ও নগর হাভেলির সঙ্গে এক সারিতে পিছনে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। অন্যদিকে, করোনা যেসব রাজ্যে সবচেয়ে বেশি সেখানে প্রথম দিকেই রয়েছে এরাজ্য। কেন্দ্রের এই পরিসংখ্যান প্রকাশের পর স্বাভাবিকভাবেই চাপ পড়েছে রাজ্যের স্বাস্থ্য মন্ত্রকের উপর। ওমিক্রনের মতো প্রজাতি মোটেই সহজ নয় তা জানিয়েছেন হু প্রধান। এরপর বিশেষজ্ঞরা করোনা বিধি মানার সঙ্গে সঙ্গে আবারও রাজ্যের টিকাকরণে জোর দিতে বলেছেন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী রাজেশ ভূষণ বলেছেন, “ফাস্ট ওয়েভে সেদিন ভ্যাকসিন ছিল ২ শতাংশ, আজ যা মৃত্যুর হার তাতে ভ্যাকসিন হয়েছে ৭২ শতাংশ।”

বেশ কিছুদিন হল রাজ্যে শুরু হয়েছে ১৫-১৮ বছর বয়সী কিশোর কিশোরীদের টিকাকরণ। টিকাকরণ ছাড়া করোনা থেকে বাঁচার আর কোনও গতিই নেই। কেন্দ্রের প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, রাজ্যে মাত্র ৫৩ শতাংশ কিশোর কিশোরীদের টিকাকরণ সম্ভব হয়েছে। কিন্তু এতো কম সংখ্যার পেছনে কারণ কি সেই সম্পর্কে কিছুই জানা যায়নি স্পষ্ট করে। অভিভাবকদের গাফিলতি, নাকি ছাত্র-ছাত্রীদের ভয়, নাকি সরকারের কোনও দায়িত্বজ্ঞানহীনতা কাজ করছে তা এখনও স্পষ্ট করে বোঝা যায়নি। তবে বিশেষজ্ঞরা বারবার টিকাকরণের উপরই জোর দিতে বলছেন। দেশে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা রোজই ভয়াবহ আকার নিচ্ছে। মৃত্যুও ৫০০ ছুঁই ছুঁই। রাজ্যেও ১০ হাজারের বেশি আক্রান্ত হচ্ছে রোজ। মৃত্যুও হয়েছে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ জনের। গোটা দেশের মধ্যে অ্যাক্টিভ রোগীর নিরিখে পঞ্চম স্থানে পৌঁছে হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। যা নির্দ্বিধায় চিন্তা বাড়াচ্ছে।

আরও পড়ুন:  Puffed Rice: মুড়ির দাম বাড়ার পিছনে আসল রহস্য!

Featured article