25 C
Kolkata

নতুন করে বাঁচার স্বপ্ন

নিজস্ব সংবাদদাতা : বিবাহ বিচ্ছেদ হওয়া মহিলাদের বিয়ে দিয়ে, নতুন করে বাঁচার স্বপ্ন দেখাচ্ছে এক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। বসিরহাট মহাকুমার বসিরহাট দুই নম্বর ব্লকের শ্রীনগর গ্রামের ঘটনা।এবার সপ্তম বর্ষ পড়লো এই গণবিবাহ

মোট ২১ জোড়া পাত্র-পাত্রীদের বিয়ে দিয়ে সংসারের দাম্পত্য জীবনের সবকিছু দিয়ে বিয়ের বন্দোবস্ত করল ইউনিশিয়া স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। এই বিবাহ অনুষ্ঠানের খরচ পুরোটাই নিজেদের সঞ্চিত অর্থ থেকে দিয়ে এই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন কাজ করে যাচ্ছে, জেলার বিভিন্ন প্রান্তে দুঃস্থ হত দরিদ্র পরিবারের পাশে এসে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে তারা ।

এই সংগঠনের মূল উদ্দেশ্য সমাজে পিছিয়ে পড়া দরিদ্র শ্রেণীর মানুষ। তারা সন্তানদের বিয়ে দিতে অক্ষম হয়ে পড়ে। এমনকি স্বামী পরিত্যাক্তা বা ছেড়ে দেওয়া মেয়েদের নতুন ভাবে বাঁচার স্বপ্ন দেখাচ্ছেন সংগঠনের সদস্যরা।

আরও পড়ুন:  Prabir Chatterjee: চিটফান্ড কাণ্ডে গ্রেফতার প্রবীর চট্টোপাধ্যায়

এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইউনিশিয়া এডুকেশন সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার সোসাইটি কর্ণধার মুফতি শফিকুল মজাহিদ , বিধায়ক রফিকুল ইসলাম সহ বিশিষ্টজনেরা। মঞ্চে ২১, জোড়া ছেলেমেয়েদের চার হাত এক করে দিয়ে মনের তৃপ্তি পেলেন বলে জানান এই সংগঠনের কর্ণধার এবং সদস্যরা।

এই অনুষ্ঠানে এসে এক পাত্রীর বাবা বলেন ‘আমার ছয় মেয়ে আমি তাদের বিয়ে দিতে পারিনি, আমি ভিক্ষা করে সংসার চালাই আমার দুই চোখ অন্ধ ।আমি এই সংগঠনের সঙ্গে যোগাযোগ করে আমার একে একে ছয় কন্যাকে এইভাবে তাদের শ্বশুরবাড়ি পাঠাতে পেরেছি, আমি খুব খুশি ‘।

বিয়ের পরে পাত্র-পাত্রীর আত্মীয়-স্বজন থেকে শুরু করে প্রায় আড়াই হাজার মানুষ ভুরিভোজে অংশগ্রহণ করেন। খাবার মেনুতে ছিল চিকেন বিরিয়ানি, ভেজ ডাল, চাটনি, পাপড়, সঙ্গে ছিল মিষ্টি। মানুষ তৃপ্তি করে খেলেন এবং নব দম্পতিদের আশীর্বাদ করলেন

আরও পড়ুন:  হাওড়ার মঞ্চ থেকেই ভার্চুয়ালি মানুষের হাতে পরিষেবা তুলে দেবেন মুখ্যমন্ত্রী

Featured article

%d bloggers like this: