29 C
Kolkata

UP Election : এই আসনে প্রার্থী হতেই মোদিকে ধন্যবাদ যোগীর

নিজস্ব সংবাদদাতা : ২০১৭ সালে বিধানসভা নির্বাচনে ৩১২টি আসনে জয়লাভ করে উত্তরপ্রদেশের ক্ষমতায় এসেছিল বিজেপি। সেবার জোট বেঁধে ভোটে যায় সমাজবাদী পার্টি ও কংগ্রেস। সমাজবাদী পার্টি ২৯৮টি আসনে এবং কংগ্রেস বাকি ১০৫টি আসনে প্রার্থী দেয়। তার মধ্যে এসপি কোনওক্রমে ৪৭টি আসন পায়। কংগ্রেসের ঝুলিতে আসে মাত্র সাতটি আসন। বহুজন সমাজবাদী পার্টিও বিশেষ সুবিধা করতে পারেনি। পায় ১৯টি আসন। বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতা দখল করে বিজেপি। মুখ্যমন্ত্রী হন যোগী আদিত্যনাথ। পাঁচ বছর পর দু হাজার বাইশে দেশের অন্যতম বড় এই রাজ্যের বিধানসভার ৪০৩টি আসনে নির্বাচন।

বেশ কয়েকদিন ধরেই জল্পনা চলছিল হিন্দুত্বের পালে হাওয়া লাগাতে যোগী আদিত্যনাথ এবার অন্য কোনও আসন থেকে নির্বাচনে লড়তে পারেন। জোরালোভাবে উঠে এসেছিল অযোধ্যা ও মথুরার নাম। প্রসঙ্গত, যোগী আদিত্যনাথ ১৯৯৮ সাল থেকে টানা পাঁচ বার গোরক্ষপুরের সাংসদ থেকেছেন। তা সত্ত্বেও গুঞ্জন ছিল যোগী এবার অযোধ্যা বা মথুরার আসন থেকে বিধানসভা নির্বাচনে লড়বেন। অবশেষে জল্পনার অবসান। অযোধ্যা বা মথুরা নয়, গোরক্ষপুর কেন্দ্র থেকেই লড়ছেন বিজেপির বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন। গোরক্ষপুর কেন্দ্রে ভোট হবে ৩ মার্চ। সূত্রের খবর, গোরক্ষপুর থেকেই টানা পাঁচবার লোকসভা নির্বাচনে জয় পেয়ে এসেছেন যোগী।

আরও পড়ুন:  Fire: বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড হাসপাতালে, ঝলসে মৃত্যু চিকিৎসক সহ দুই শিশুর
আরও পড়ুন:  Fire: বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড হাসপাতালে, ঝলসে মৃত্যু চিকিৎসক সহ দুই শিশুর

এই কেন্দ্রকে যোগীর শক্ত ঘাঁটি হিসেবে বিবেচনা করা হয়। গুঞ্জন এই কারণেই অন্য কেন্দ্র থেকে নির্বাচনে লড়ার ঝুঁকি নিচ্ছেন না আদিত্যনাথ। ঝুঁকি নিচ্ছে না শাসক বিজেপিও। ইউনিয়নমন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান সাংবাদিকদের বলেন, ‘সিদ্ধান্তটি পার্টির সর্বোচ্চ স্তর থেকে নেওয়া হয়েছে’। অন্যদিকে, যোগী আদিত্যনাথ জানিয়েছেন, ‘পার্টির সিদ্ধান্তে যে কোনও আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করব, এইটা হল পার্টির সিদ্ধান্ত। তাঁকে গোরক্ষপুরের প্রার্থী হিসেবে বাছাই করার জন্য প্রধানমন্ত্রী, বিজেপি প্রধান জেপি নাড্ডা এবং বিজেপির কেন্দ্রীয় সংসদীয় কমিটির কাছে কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করেছেন আদিত্যনাথ।’

Featured article

%d bloggers like this: